মাগুরাকে সুরক্ষিত রাখতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মাগুরা অক্সিজেন ব্যাংক।

357
1077

আব্দুস সালেক মুন্না
মাগুরা প্রতিনিধি|

 বৈশ্বিক মহামারি করোনার আগ্রাসী থাবা থেকে মাগুরাকে সুরক্ষিত রাখতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে “মাগুরা অক্সিজেন ব্যাংক”। প্রধান স্বেচ্ছাসেবী সেবা সংস্থা “সেবা বাংলাদেশ” গত ২০১৬ সাল থেকে বিনামূল্যে রক্তদান, অসহায়কে খাদ্য বিতরণ সহ বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।
বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের অন্যতম প্রধান সমস্যা শ্বাসকষ্ট। এ সমস্যার সমাধানে রোগীকে প্রয়োজন অনুযায়ী অক্সিজেন সরবরাহ করা জরুরি। সময়মতো অক্সিজেন দেওয়া সম্ভব না হলে করোনা রোগীর জীবন বিপন্ন হওয়ার আশঙ্কা থাকে। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে সারা দেশে, বিশেষ করে জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে অক্সিজেন সহজলভ্য করার বিষয়টি প্রায় এক বছর ধরে আলোচনায় থাকা সত্ত্বেও দেশের বহু অঞ্চলে এখনো অক্সিজেন সংকট কাটেনি।
এরই মধ্যে দেশে কয়েকদিন ধরে করোনায় মৃতের সংখ্যা মাত্রা ছাড়িয়েছে। মাগুরার পরিস্থিতিও ভালোর দিকে না থাকায়। সামাজিকভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মানুষের সেবায় এগিয়ে আসার মন-মানসিকতা ধারন করেই মানুষের কল্যাণে ফ্রি অক্সিজেন সেবা নিশ্চিত করতে “সেবা বাংলাদেশ” এর অন্তর্ভুক্ত “মাগুরা অক্সিজেন ব্যাংক” টিম কাজ করছে।
প্রতিষ্ঠানের প্রধান সমন্বয়ক আব্দুস সালেক মুন্না জানান মহামারী মোকাবেলায় আমরা সামাজিকভাবে ঐক্যবদ্ধ হতে চাই। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা মানবিক কিছু মানুষকে সাথে নিয়ে মানুষের বিপদে পাশে এসে দাঁড়িয়েছি।
স্বল্প সামর্থ্যের উপর ভিত্তি করে আমরা (সেবা বাংলাদেশ ও মাগুরা অক্সিজেন ব্যাংক) বর্তমানে মাগুরাবাসীর সুবিধার্থে যে যে সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করছি সেগুলোর মধ্যে, করোনাকালীন সময়ে করোনা আক্রান্ত যে কোনো রোগীকে বিনামূল্যে অক্সিজেন, ওষুধ, টেলিমেডিসিন সেবা সহ সার্বিক সহযোগিতা প্রদান। অসহায়, দরিদ্র, অতিদরিদ্র রোগীদের কে সহযোগিতার জন্য বিশেষভাবে অগ্রাধিকার দেয়া, করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক বিভিন্ন ক্যাম্পেইন করা, বিভিন্ন মসজিদ প্রাঙ্গণে, ঈদগাহ ময়দানে মাস্ক পরিধানে উদ্বুদ্ধ করার জন্য বিনামূল্যে মাস্ক প্রদান এবং করোনা সচেতনতামূলক বিশেষ বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা পদ্ধতি তুলে ধরা, করোনার প্রতিষেধক হিসেবে ভ্যাক্সিন সার্বজনীন করার জন্য বিভিন্ন এলাকায় অস্থায়ী বুথ বসিয়ে সম্পূর্ণ ফ্রিতে টিকা নিবন্ধন কার্যক্রম পরিচালনা করা করোনাকালে নিম্নআয়ের মানুষের মৌলিক চাহিদা-খাদ্য নিশ্চিতের জন্য আমরা কাজ করা সহ ঈদুল আযহার কালে ঈদ সামগ্রী সহ লকডাউন এ পড়ে থাকা মানুষেরজন্য অন্তত সাত দিনের খাবার প্রদান করার সাথে কিছু নগদ অর্থও উপহার হিসেবে দেয়ার চেষ্টা করেছি।
সর্বোপরি- আমাদের স্বেচ্ছাসেবকদের নিজেস্ব অর্থায়ন ও কিছু সহৃদয়বান ব্যক্তির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আমরা এ মহামারিতে মানুষের জন্য কিছু করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। সমাজকে মহামারির কাছ থেকে জয়ী করতে হলে সামাজিক ঐক্যবদ্ধতার বিকল্প নেই। আমরা চাই আমাদের পাশে, মানুষের পাশে আপনিও থাকুন। আমাদের হাতকে আরোও দৃঢ় করুন।

357 COMMENTS

  1. Moje dwójki zmierzają zaufanego również samodzielnego przystąpienia, jakie honoruje się mi być nich daleko częściowo, tudzież owym gołym przyozdobić łączne emocje spośród dnia ślubu, solidne doznania spójniki uwiecznić najprzyjaźniejszą dynastię także druhów. Jakie są moje dwójki? Zaradni, nie bojką się wyzwań natomiast nowalii. Ciążą wyprodukować obiekt znajomego, co opisuje Ich osobowość też wygląd natomiast przy współczesnym powszechnie… będą sobą.

    Uchwycić pożądanie, nadzieję, butę, tudzież umie miłość, zmysł, war – taka obligatoryjna obcowań fotografia ślubna, jaka choćby po latach pobudza, gromadząc najlepsze chwile w ocaleniu zamążpójścia. Artykuł ślubny stanowi teraźniejszość gwoli niemało nowożeńców pamiątką, na jaką niepomiernie odwlekają po odbytej akademii dodatkowo weselnym otrzymaniu. Przeniknięcia partnery przesądzają dla ślubnych niezmierzoną zaletę, do jakiej często cofają oraz jaką wyrywnie rozklejają się z najukochańszymi. Teraźniejsze wsio egzystuje w przebywanie zaświadczyć kolejnym małżonkom Łukasz Popielarz – Fotograf Ślubny

    Narada małżeńska w spełnieniu toż piękno spiętrzenie aniżeli nienagannie odpowiedni krajobraz ślubny bądź stosownie sformowana Dwójka Młodociana. Wyłowienie potęgi, podkreślenie kochań, a przy współczesnym zsynchronizowanie opraw do kierunku debiutantach partnerów – na to zwracam w mojej praktyce. W kopiach znajdziecie pisaną uprzejmą drakę. Obecną, która Was sprzęgła a jaką będziecie zbiorowo obrabiać przed sukcesywne dzionków równego działania. Wspomogę Wam nagryzmolić jej rodowód – Wasz ślub – który połączy Was na zawdy sztychem też wesele, które przebędziemy obopólnie z linią oraz sympatykami. Utrwalimy chwile, do jakich będziecie tęsknić również pokażemy namacalne fascynacje, które będą Wam postępować w niniejszym pięknym etapie. Przystań mi wypracować pamięć z najważniejszego dzionka w Waszym byciu !

    czytaj wiecej fotografia ślubna

  2. Депутат Госдумы Магомед Гаджиев подарил двукратному олимпийскому чемпиону по вольной борьбе Абдулрашиду Садулаеву миллион долларов за победу на Играх в Токио. Об этом спортсмен сообщил в своем Instagram-аккаунте.

    «Хочу поблагодарить своего земляка из Чародинского района, депутата Госдумы Магомеда Гаджиева, который решил поощрить меня миллионом долларов за победу на Олимпиаде в Токио. Также без внимания не остался мой тренер Шамиль Омаров», — рассказал борец.

    Он также поблагодарил тренера за поддержку и пообещал держать планку, радуя болельщиков новыми победами.

    7 августа 25-летний Садулаев завоевал золотую медаль в весовой категории до 97 килограммов на Олимпиаде в Токио. В финальном поединке россиянин победил американца Кайла Снайдера со счетом 6:3. Таким образом, Садулаев стал двукратным олимпийским чемпионом. Первое золото он взял на Играх в Рио-де-Жанейро.

    Спонсоры в Москве – ugg australia купить в москве

  3. Журналистам «Би-би-си» удалось получить доступ к содержимому планшета, который, предположительно, мог принадлежать наемнику из организации, известной как частная военная компания (ЧВК) Вагнера, действующей в Ливии. Полученные данные частично опубликованы на сайте издания.

    В материале «Би-би-си» рассказывается, что устройство Samsung журналистам передал неназванный ливийский источник. Предположительно, его оставил один из бойцов во время отступления на западе страны. Корреспонденты перевезли устройство в Лондон и обнаружили десятки файлов: учебные схемы с минами, инструкции по их изготовлению, съемки с беспилотника, а также несколько книг, включая программную книгу Адольфа Гитлера «Моя борьба» (признана в России экстремистским материалом).

    Кроме того, на планшет были загружены карты зон боевых действий, где были отмечены позывные бойцов. Журналисты сопоставили их с базой данных украинского сайта «Миротворец» и обнаружили совпадения. Еще одна важная находка — карта минных полей. В некоторых случаях на картах были даже указаны типы мин, например, МОН-50. Авторы материала рассказали, что передали полученные данные в некоммерческую организацию, которая занимается разминированием ливийских территорий, но не сообщили ее название.

    Никаких личных файлов, судя по статье «Би-би-си», на устройстве не хранилось. Это смутило Александру Виграйзер, автора специального расследования «Сноба» про наемные армии. В беседе с «Лентой.ру» журналист не исключила, что корреспонденты «Би-би-си» могли, поверив источнику, стать жертвой манипуляции.

    По ее словам, планшет мог быть действительно забыт кем-то из наемников вследствие «разгильдяйства», но с той же долей вероятности на устройство могли намеренно загрузить материалы, которые ранее получили при помощи разведки. «А почему в нем нет ничего личного — ну, наверно, потому что личного в достаточном объеме не собрали, в конце концов разведка не за этим охотится», — отметила Виграйзер.

    Рекомендуем сайт – угги высокие женские зимние

  4. Nadler’s office wishing for the life of her that she was any place but there!!! Momentarily lost in thought, she jumped a little when the doctor’s nurse burst into the room and offered, “You must be Nicki, I’m Meg Kean, and I’m Dr. Nadler’s nurse, so, what can we do for you today, Nicki!?!” Nicki was a little taken aback at Meg Kean’s enthusiasm, but after finally regaining her bearings she replied softly, “Well, uh, it’s a female problem!!!” “I see,” the nurse replied while getting out her pen to make notes on Nicki’s chart, “and what exactly are your symptoms!?!” Nicki turned a bright shade…
    https://telegra.ph/PHYSICAL-EXAM-09-11

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here